الْمُضَعَّفُ বা মুদায়াফ ক্রিয়া

আল মুদায়াফ হল এমন ক্রিয়াপদ যার  ع কালিমা ل কালিমা একই। যেমনঃ  حَجَّ অর্থ সে হাজ্ব করলো حَجَّ  হল মূলত حَجَجَ যার ع কালিমার  হারকাত”  উঠে গিয়ে হয়েছে   حَجْجَ =>   حَجَّ কিন্তু মুতাহাররিক সর্বনামের ক্ষেত্রে হারকাত ফিরে আসে। যেমনঃ حَجَجْنَ , حَجَجْتَ , حَجَجْتُمَا .........  حَجَجْنَا

الْمُضَارِعُ  এর ক্ষেত্রেও সাকিন সর্বনামের ক্ষেত্রে  ل কালিমার  হারকাত উঠে যায়  যেমনঃ   يَحْجُجُ  =>  يَحُجُّ কিন্তু মুতাহাররিক সর্বনামের ক্ষেত্রে হারকাত ফিরে আসে। যেমনঃ يَحْجُجْنَ

الْمَاضِي অতীত কালের ক্রিয়া

বহুবচন

দ্বিবচন

একবচন

 

حَجُّوْا

حَجَّا

حَجَّ

পুং

حَجَجْنَ

حَجَّتَا

حَجَّتْ

স্ত্রী

حَجَجْتُمْ

حَجَجْتُمَا

حَجَجْتَ

পুং

حَجَجْتُنَّ

حَجَجْتُمَا

حَجَجْتِ

স্ত্রী

حَجَجْنَا

 

حَجَجْتُ

উভয়

 

الْمُضَارِعُ  বর্তমান কালের ক্রিয়া

বহুবচন

দ্বিবচন

একবচন

 

يَحُجُّوْنَ

يَحُجَّانِ

يَحُجُّ

পুং

يَحْجُجْنَ

تَحُجَّانِ

تَحُجُّ

স্ত্রী

تَحُجُّوْنَ

تَحُجَّانِ

تَحُجُّ

পুং

تَحْجُجْنَ

تَحُجَّانِ

تَحُجِّيْنَ

স্ত্রী

نَحُجُّ

 

أَحُجُّ

উভয়

 

الْمَاضِي অতীত কালের ক্রিয়া

বহুবচন

দ্বিবচন

একবচন

 

ضَلُّوا

ضَلَّا

ضَلَّ

পুং

ضَلَلْنَ

ضَلَّتَا

ضَلَّتْ

স্ত্রী

ضَلَلْتُمْ

ضَلَلْتُمَا

ضَلَلْتَ

পুং

ضَلَلْتُنَّ

ضَلَلْتُمَا

ضَلَلْتِ

স্ত্রী

ضَلَلْنَا

 

ضَلَلْتُ

উভয়

 

الْمُضَارِعُ  বর্তমান কালের ক্রিয়া

বহুবচন

দ্বিবচন

একবচন

 

يَضِلُّوْنَ

يَضِلَّانِ

يَضِلُّ

পুং

يَضْلِلْنَ

تَضِلَّانِ

تَضِلُّ

স্ত্রী

تَضِلُّوَنَ

تَضِلَّانِ

تَضِلُّ

পুং

تَضْلِلْنَ

تَضِلَّانِ

تَضِلِّيْنَ

স্ত্রী

نَضِلُّ

 

أَضِلُّ

উভয়

 

মাজ্জুম  ও আমরঃ

বর্তমানের রূপ  يَحُجُّ কে মাজ্জুম করলে দাঁড়ায় يَحُجْجْ দুই সাকিনের মিলন রোধে শেষে একটা হরকাত নিয়ে আসতে হয় যেমন  لَمْ يَحُجَّ কিন্তু অন্যান্য ক্ষেত্রে এরুপ সমস্যা হয় না যেমন  لَمْ يَحُجُّوْا

আদেশের ক্ষেত্রে   تَحُجُّ এর মুদারীর আলামত تَ  এবং শেষের পেশ উঠে যাবে অর্থাৎ   حُجّ দুই সুকুনের মিলন রোধে শেষে যবর আসবে এবং এক্ষেত্রে কোন হামজাতুল ওয়াসালি আনতে হবে না যেহেতু প্রথমে সাকিন আসছে না সুতরাং সবশেষে আমরের রূপ হবে  حُجَّ   উল্লেখ্য যে মুদায়াফ এর আমর এভাবেও হয়ঃ أُرْدُدْ , أُصْدُدْ  ইত্যাদি।

أَمْرٌ  আদেশ

বহুবচন

দ্বিবচন

একবচন

 

حُجُّوْا

حُجَّا

حُجَّ

পুং

اُحْجُجْنَ

حُجَّا

حُجِّيْ

স্ত্রী

نَهِيْ  নিষেধ

لا تَحُجُّوْا

لا تَحُجَّا

لا تَحُجَّ

পুং

لا تَحْجُجْنَ

لا تَحُجَّا

لا تَحُجِّيْ

স্ত্রী

 

أَمْرٌ  আদেশ

বহুবচন

দ্বিবচন

একবচন

 

ضِلُّوْا

ضِلَّا

ضِلَّ

পুং

اِضْلِلْنَ

ضِلَّا

ضِلِّيْ

স্ত্রী

نَهِيْ  নিষেধ

لا تَضِلُّوْا

لا تَضِلَّا

لا تَضِلَّ

পুং

لا تَضْلِلْنَ

لا تَضِلَّا

لا تَضِلِّيْ

স্ত্রী

 

 মুদায়াফ ক্রিয়ার উদাহরণ,

الْمَصْدَرُ

أَمْرٌ

الْمُضَارِعُ

الْمَاضِي

ক্রিয়া

حَيَاةٌ

اِحْيَ

يَحْيَا

حَيَّ

জীবিত  হওয়া

رَدٌّ

اُرْدُدْ

يَرُدُّ

رَدَّ

ফিরে যাওয়া

صَدٌّ

اُصْدُدْ

يَصُدُّ

صَدَّ

লুকানো

ضَرٌّ

اُضْرُرْ

يَضُرُّ

ضَرَّ

ক্ষতি করা

ظَنٌّ

اُظْنُنْ

يَظُنُّ

ظَنَّ *

মনে করা

عَدٌّ

اُعْدُدْ

يَعُدُّ

عَدَّ

না করা

مَدٌّ

اُمْدُدْ

يَمُدُّ

مَدَّ

ছড়ানো

وُدٌّ

اِوْدَدْ

يَوَدُّ

وَدَّ

ইচ্ছা করা

ضَلَالَةٌ، ضَلَالٌ

اِضْلِلْ

يَضِلُّ 

ضَلَّ *

পথভ্রষ্ট হওয়া

غُرُورٌ

اِغْرِرْ

يَغُرُّ

غَرَّ

বিভ্রান্ত করা

مَسٌّ

اِمْسَسْ

يَمَسُّ

مَسَّ

স্পর্শ করা

 

কুরানীয় উদাহরণঃ

তাহলে আমি পথভ্রান্ত হয়ে যাব এবং সুপথগামীদের অন্তর্ভুক্ত হব না।

قَدْ ضَلَلْتُ إِذًا وَمَا أَنَا مِنَ الْمُهْتَدِينَ

যারা কুফরী অবলম্বন করেছে, এবং আল্লাহর পথে বাধার সৃষ্টি করেছে, তারা বিভ্রান্তিতে সুদূরে পতিত হয়েছে।

إِنَّ الَّذِينَ كَفَرُوا وَصَدُّوا عَن سَبِيلِ اللَّهِ قَدْ ضَلُّوا ضَلَالًا بَعِيدًا

সুতরাং যারা কাবা ঘরে হজ্ব বা ওমরাহ পালন করে, তাদের পক্ষে এ দুটিতে প্রদক্ষিণ করাতে কোন দোষ নেই।

فَمَنْ حَجَّ الْبَيْتَ أَوِ اعْتَمَرَ فَلَا جُنَاحَ عَلَيْهِ أَن يَطَّوَّفَ بِهِمَا

আল্লাহর পরিবর্তে সে যার এবাদত করত, সেই তাকে ঈমান থেকে নিবৃত্ত করেছিল।

وَصَدَّهَا مَا كَانَت تَّعْبُدُ مِن دُونِ اللَّهِ ۖ

অথচ আমরা মনে করতাম, মানুষ ও জিন কখনও আল্লাহ তাআলা সম্পর্কে মিথ্যা বলতে পারে না।

وَأَنَّا ظَنَنَّا أَن لَّن تَقُولَ الْإِنسُ وَالْجِنُّ عَلَى اللَّهِ كَذِبًا

তারা ধারণা করত, যেমন তোমরা মানবেরা ধারণা কর যে, মৃত্যুর পর আল্লাহ তাআলা কখনও কাউকে পুনরুত্থিত করবেন না।

وَأَنَّهُمْ ظَنُّوا كَمَا ظَنَنتُمْ أَن لَّن يَبْعَثَ اللَّهُ أَحَدًا

আবু লাহাবের হস্তদ্বয় ধ্বংস হোক এবং ধ্বংস হোক সে নিজে,

تَبَّتْ يَدَا أَبِي لَهَبٍ وَتَبَّ

অনন্তর যখন রজনীর অন্ধকার তার উপর সমাচ্ছন্ন হল, তখন সে একটি তারকা দেখতে পেল,

فَلَمَّا جَنَّ عَلَيْهِ اللَّيْلُ رَأَىٰ كَوْكَبًا

এছাড়া এমন রসূল পাঠিয়েছি যাদের ইতিবৃত্ত আমি আপনাকে শুনিয়েছি ইতিপূর্বে এবং এমন রসূল পাঠিয়েছি যাদের বৃত্তান্ত আপনাকে শোনাইনি।

وَرُسُلًا قَدْ قَصَصْنَاهُمْ عَلَيْكَ مِن قَبْلُ وَرُسُلًا لَّمْ نَقْصُصْهُمْ عَلَيْكَ

যারা আমার নিদর্শনাবলীকে মিথ্যা বলে, তাদেরকে তাদের নাফরমানীর কারণে আযাব স্পর্শ করবে।

وَالَّذِينَ كَذَّبُوا بِآيَاتِنَا يَمَسُّهُمُ الْعَذَابُ بِمَا كَانُوا يَفْسُقُونَ

তারা মুসলমান হয়ে আপনাকে ধন্য করেছে মনে করে।

يَمُنُّونَ عَلَيْكَ أَنْ أَسْلَمُوا

তোমাদের কিছু লোক নিরক্ষর। তারা মিথ্যা আকাঙ্খা ছাড়া আল্লাহর গ্রন্থের কিছুই জানে না। তাদের কাছে কল্পনা ছাড়া কিছুই নেই।

وَمِنْهُمْ أُمِّيُّونَ لَا يَعْلَمُونَ الْكِتَابَ إِلَّا أَمَانِيَّ وَإِنْ هُمْ إِلَّا يَظُنُّونَ

সেদিন পলায়ন করবে মানুষ তার ভ্রাতার কাছ থেকে,

يَوْمَ يَفِرُّ الْمَرْءُ مِنْ أَخِيهِ