الْمَهْمُوْزُ বা মাহমুজ ক্রিয়া

যে ক্রিয়া মূলের একটি অক্ষর أ   তাকে  الْفِعْلُ الْمَهْمُوْزُ বলেযেমনঃ

الْمَصْدَرُ

أَمْرٌ

الْمُضَارِعُ

الْمَاضِي

ক্রিয়া

سُؤَالٌ  

سَلْ/ اِسْئَلْ

يَسْأَلُ

سَأَلَ

প্রশ্ন করা

قِرَاءَةٌ

اِقْرَأْ

يَقْرَأُ

قَرَأَ

পড়া

أَخْذٌ

خُذْ

يَأْخُذُ

أَخَذَ

ধরা

أَكْلٌ

كُلْ

يَأْكُلُ

أَكَلَ

খাওয়া

أَمْرٌ

مُرْ

يَأْمُرُ

أَمَرَ *

আদেশ করা

أَمْنٌ

اِئْمَنْ

يَأْمَنُ

أَمِنَ

নিরাপদ হওয়া

اِبَاءٌ

اِئْبَ

يَأْبَى

أَبَى

অমান্য করা

رَأْيٌ

رَ

يَرَى

رَأَى *

দেখা

اِتْيَانٌ

اِئْتِ

يَأْتِي

أَتَى *

আসা

مَشِيئَةٌ

شَأْ

يَشَاءُ

شَاءَ *

চাওয়া

سَوْءٌ

سُؤْ

يَسُوءُ

سَاءَ

খারা হওয়া

مَجِيءٌ

جِئْ

يَجِيءُ

جَاءَ

আসা

 

লক্ষণীয়ঃ

  • ف কালিমা হামজাহ হলে أَمْرٌ এর ক্ষেত্রে প্রথমে হামজাতুল ওয়াসলি নাও আসতে পারে। যেমনঃ أَكَلَ -  يَأْكُلُ - كُلْ   
  • ع কালিমা হামজাহ হলে হামজাতুল ওয়াসলি থাকতেও পারে আবার নাও থাকতে পারে। যেমনঃ  سَأَلَ - يَسْأَلُ – اِسْئَلْ/ سَلْ   

  

الْمَاضِي অতীত কালের ক্রিয়া

বহুবচন

দ্বিবচন

একবচন

 

أَكَلُوْا

أَكَلَا

أَكَلَ

পুং

أَكَلْنَ

أَكَلَتَا

أَكَلَتْ

স্ত্রী

أَكَلْتُمْ

أَكَلْتُمَا

أَكَلْتَ

পুং

أَكَلْتُنَّ

أَكَلْتُمَا

أَكَلْتِ

স্ত্রী

أَكَلْنَا

 

أَكَلْتُ

উভয়

 

الْمُضَارِعُ  বর্তমান কালের ক্রিয়া

বহুবচন

দ্বিবচন

একবচন

 

يَأْكُلُوْنَ

يَأْكُلَانِ

يَأْكُلُ

পুং

يَأْكُلْنَ

تَأْكُلَانِ

تَأْكُلُ

স্ত্রী

تَأْكُلُوْنَ

تَأْكُلَانِ

تَأْكُلُ

পুং

تَأْكُلْنَ

تَأْكُلَانِ

تَأْكُلِيْنَ

স্ত্রী

نَأْكُلُ

 

آكُلُ

উভয়

 

الْمَاضِي অতীত কালের ক্রিয়া

বহুবচন

দ্বিবচন

একবচন

 

سَأَلُوْا

سَأَلَا

سَأَلَ

পুং

سَأَلْنَ

سَأَلَتَا

سَأَلَتْ

স্ত্রী

سَأَلْتُمْ

سَألْتُمَا

سَأَلْتَ

পুং

سَأَلْتُنَّ

سَألْتُمَا

سَأَلْتِ

স্ত্রী

سَأَلْنَا

 

سَأَلْتُ

উভয়

 

الْمُضَارِعُ  বর্তমান কালের ক্রিয়া

বহুবচন

দ্বিবচন

একবচন

 

يَسْأَلُوْنَ

يَسْأَلَانِ

يَسْأَلُ

পুং

يَسْأَلْنَ

تَسْأَلَانِ

تَسْأَلُ

স্ত্রী

تَسْأَلُوْنَ

تَسْأَلَانِ

تَسْأَلُ

পুং

تَسْأَلْنَ

تَسْأَلَانِ

تَسْأَلِيْنَ

স্ত্রী

نَسْأَلُ

 

أَسْأَلُ

উভয়

 

الْمَاضِي অতীত কালের ক্রিয়া

বহুবচন

দ্বিবচন

একবচন

 

قَرَأُوْا

قَرَآ

قَرَأَ

পুং

قَرَأْنَ

قرأَتَا

قَرَأَتْ

স্ত্রী

قَرَأْتُمْ

قَرَأْتُمَا

قَرَأْتَ

পুং

قَرَأْتُنَّ

قَرَأْتُمَا

قَرَأْتِ

স্ত্রী

قَرَأْنَا

 

قَرَأْتُ

উভয়

 

الْمُضَارِعُ  বর্তমান কালের ক্রিয়া

বহুবচন

দ্বিবচন

একবচন

 

يَقْرَأُوْنَ

يَقْرَآنِ

يَقْرَأُ

পুং

يَقْرَأْنَ

تَقْرَآنِ

تَقْرَأُ

স্ত্রী

تَقْرَأُوْنَ

تَقْرَآنِ

تَقْرَأُ

পুং

تَقْرَأْنَ

تَقْرَآنِ

تَقْرَئِيْنَ

স্ত্রী

نَقْرَأُ

 

أَقْرَأُ

উভয়

 

أَمْرٌ  আদেশ

বহুবচন

দ্বিবচন

একবচন

 

كُلُوْا

كُلَا

كُلْ

পুং

كُلْنَ

كُلَا

كُلِيْ

স্ত্রী

نَهِيْ  নিষেধ

لا تَأْكُلُوْا

لا تَأْكُلَا

لا تَأْكُلْ

পুং

لا تَأْكُلْنَ

لا تَأْكُلَا

لا تَأْكُلِيْ

স্ত্রী

 

أَمْرٌ  আদেশ

বহুবচন

দ্বিবচন

একবচন

 

اِقْرَءُوْا

اِقْرَءَا

اِقْرَأْ

পুং

اِقْرَئْنَ

اِقْرَءَا

اِقْرَئِيْ

স্ত্রী

نَهِيْ  নিষেধ

لا تَقْرَءُوْا

لا تَقْرَءَا

لا تَقْرَأْ

পুং

لا تَقْرَئْنَ

لا تَقْرَءَا

لا تَقْرَئِيْ

স্ত্রী

 

কুরানীয় উদাহরণঃ

যেদিন রূহ ও ফেরেশতাগণ সারিবদ্ধভাবে দাঁড়াবে। দয়াময় আল্লাহ যাকে অনুমতি দিবেন, সে ব্যতিত কেউ কথা বলতে পারবে না এবং সে সত্যকথা বলবে।

يَوْمَ يَقُومُ الرُّوحُ وَالْمَلَائِكَةُ صَفًّا ۖ لَّا يَتَكَلَّمُونَ إِلَّا مَنْ أَذِنَ لَهُ الرَّحْمَٰنُ وَقَالَ صَوَابًا

ও তার পালনকর্তার আদেশ পালন করবে এবং আকাশ এরই উপযুক্ত

وَأَذِنَتْ لِرَبِّهَا وَحُقَّتْ

তাদের জ্যেষ্ঠ ভাই বললঃ তোমরা কি জান না যে, পিতা তোমাদের কাছ থেকে আল্লাহর নামে অঙ্গীকার নিয়েছেন এবং পূর্বে ইউসুফের ব্যাপারেও তোমরা অন্যায় করেছো?

قَالَ كَبِيرُهُمْ أَلَمْ تَعْلَمُوا أَنَّ أَبَاكُمْ قَدْ أَخَذَ عَلَيْكُم مَّوْثِقًا مِّنَ اللَّهِ وَمِن قَبْلُ مَا فَرَّطتُمْ فِي يُوسُفَ

একব্যক্তি চাইল, সেই আযাব সংঘটিত হোক যা অবধারিত-

سَأَلَ سَائِلٌ بِعَذَابٍ وَاقِعٍ

অতএব, যখন আপনি কোরআন পাঠ করেন তখন বিতাড়িত শয়তান থেকে আল্লাহর আশ্রয় গ্রহণ করুন।

فَإِذَا قَرَأْتَ الْقُرْآنَ فَاسْتَعِذْ بِاللَّهِ مِنَ الشَّيْطَانِ الرَّجِيمِ