আরবী ভাষার পরিচয়

 

ভাষার মৌলিক উপাদান হলোঃ বর্ণ (Letter), শব্দ (Word), ও বাক্য (Sentence)। তাই নয় কি? আরবী ভাষাটাও এর ব্যতিক্রম নয়। আসুন দেখি আরবি শিখতে হলে আমাদের মৌলিকভাবে কি কি শিখতে হয়।

আরবীতে বর্ণ আছে حَرْفٌ  ২৯ টি।

ا ب ت ث ج ح خ  د ذ ر ز س ش ص ض ط ظ ع غ ف ق ك ل م ن و ه ء ي

হারফগুলোকে প্রধানত দুইভাগে ভাগ করা হয়। একটা হলো حَرفٌ صَحِيحٌ   বা ব্যঞ্জনবর্ণ আরেকটা হলো حَرفُ عِلَّةٍ  বা স্বরবর্ণ।  ا  و ي  এই তিনটা হলো স্বরবর্ণ। বাকিগুলো ব্যঞ্জনবর্ণ

 

আরবীতে শব্দ বা পদকে বলা হয় كَلِمَةٌ  

শব্দ তিন প্রকারের। اِسْمٌ   বা নামপদ (Noun),  حَرْفٌ  বা অব্যয়পদ (Particle), এবং فِعْلٌ  বা ক্রিয়াপদ (Verb)।

 

اِسْمٌ বা নামপদ

اِسْمٌ বা নামপদগুলো মুলত দুই প্রকার। একটা হলো اِسْمُ الجَامِدِ মৌলিক ইসম (Fundamental)। যেগুলো কোন কিছু থেকে উদ্ভুত নয়। যেমন, বিভিন্ন নাম (Name), সর্বনাম (Pronoun), প্রশ্নবোধক শব্দ (Interrogative), স্থান ও কালবাচক শব্দ (Adverb of place and time) ইত্যাদি।

 

মৌলিক ইসম اِسْمُ الجَامِدِ

উদাহরণ

বাংলা নাম

আরবি নাম

الله،  مَرْيَمُ،  زَيْدٌ

ব্যক্তি, বস্তু, স্থান, সময়ের নাম

اِسْمُ العَلَمِ

رَبٌّ، نَاسٌ، جَبَلٌ،  قَلَمٌ

জাতীবাচক নাম

اِسْمُ الْجِنْسِ

هُوَ، هُمْ،  كَ،  كُمْ،

সর্বনাম

الضَّمِيْرُ

هَٰذَا، هٰذِهِ، ذَٰلِكَ، أُولَٰئِكَ

ইশারাবাচক বিশেষ্য

اِسْمُ الإِشَارَةِ

الَّذِي ، الَّذِينَ

সম্বন্ধসূচক বিশেষ্য

الاِسْمُ الْمَوْصُولُ

كَيفَ، مَتَى، مَا، مَنْ

প্রশ্নবোধক বিশেষ্য

اِسْمُ الإسْتِفْهَام

بَيْنَ، فَوْقَ، بَعْدَ، قَبْلَ

স্থান ও কালবাচক শব্দ

الظَّرْف

هَيْهَاتَ، آهْ، آمِيْنَ ، هَيْتَ

ক্রিয়ার অর্থ প্রকাশক ইসম

اسمُ الفِعْل

 

আরেকটা হলো الِاسْمُ الْمُشْتَقُّ ক্রিয়া উদ্ভুত ইসমযেমন ক্রিয়ার নাম (Verbal Noun), কর্তার নাম (Name of Doer), কর্মের নাম (Name of object), ক্রিয়া উদ্ভুত বিশেষণ (Derived adjective), স্থান ও কালের নাম (Name of place and time), তুলনামূলক নাম (Comparatives), তীব্রতা প্রকাশক নাম (Neme of Extended Meaning) ইত্যাদি

 

ক্রিয়া উদ্ভুত ইসম  الاِسْمُ الْمُشْتَقُّ

উদাহরণ

বাংলা নাম

আরবি নাম

حَمْدٌ، نَصْرٌ، شِرْكٌ، خُرُوْجٌ

ক্রিয়া বিশেষ্য

الْمَصْدَر**

رَاحِمٌ، نَاصٍرٌ، مُحَدِّثٌ، خَالِقٌ

কর্তার নাম

اِسْمُ الْفَاعِلِ

مَحْمُودٌ، مَغْضُوبٌ، مُحَمَّدٌ

কর্মের নাম

اِسْمُ الْمَفْعُولِ

مَشْرَبٌ، مَسْجِدٌ، مَدْرَسَةٌ، 

সময় স্থানের নাম

اِسْمُ الزَّمانِ والْمَكانِ

مِفْتَاحٌ، مِيْزَانٌ، مِصْبَاحٌ

উপকরণ বিশেষ্য 

اِسْمُ الآلَةِ

غَفَّارٌ، غَفُوْرٌ، عَلِيْمٌ، رَحْمَانُ،

তীব্রতা প্রকাশক নাম

اِسْمُ الْمُبالَغَةِ

كَرِيمٌ، عَظِيْمٌ، حَسَنٌ، شُجَاعٌ

ক্রিয়া উদ্ভুত বিশেষণ

الصِّفَةُ الْمُشَبَّهَة

أَحْسَنُ، أَكْبَرُ ، أَحْكَمُ

তুলনাবাচক বিশেষ্য

اِسْمُ التَّفْضِيلِ

 

[** আমাদের এই বইতে মাসদারকে ক্রিয়া উদ্ভুত ইসম হিসেবে দেখানো হলো ভিন্ন মতে ক্রিয়া থেকে মাসদার আসে না বরং মাসদার থেকে ক্রিয়া উৎপন্ন হয়]

 

حَرْفٌ  বা অব্যয়পদ

حَرْفٌ বা অব্যয় পদগুলো কয়েক প্রকার যেমন, পদান্বয়ী অব্যয় (Prepositions), সংযোজক অব্যয় (Conjunctions), প্রশ্নবোধক অব্যয় (Interrogations), আশ্চর্যবোধক অব্যয় (Exclamations) ইত্যাদি।

 

অব্যয় حَرْفٌ

উদাহরণ

বাংলা নাম

আরবি নাম

بِ، لِ، مِنْ، فِي، إِلَىٰ ، عَنْ، عَلَى

যের দানকারী অব্যয়

حَرْفُ الْجرِّ

إِنَّ، أَنَّ، لَعَلَّ، لَيْتَ، كَأنَّ، فَ 

যবরদানকারী অব্যয়

حَرْفُ النَّصْبِ

فَ، لَا، وَ، ثُمَّ

সংযোজক অব্যয়

حَرْفُ العَطْفِ

يَا، اَيُّهَا، هَيَا، أيَا 

সম্বোধনের অব্যয়

حَرْفُ النِّدَاءِ

مَا، لا ، لَمْ ، لَنْ 

না বাচক অব্যয়

حَرْفُ النَّفِيْ

أَلَا، أمَا، هَا

সাবধানকারী অব্যয়

حَرْفُ التَنْبِيْهِ

أَ، هَلْ

প্রশ্নবাচক অব্যয়

حَرْفُ الإِسْتِفْهَامِ

لَوْ، إِنْ ، مَا

শর্তসূচক অব্যয়

حَرْفُ الشَّرْطِ

قَدْ، لَ ، إِنَّ

জোর প্রদানের অব্যয়

حَرْفُ التَّأكيدِ

 

فِعْلٌ  বা ক্রিয়াপদ

فِعْلٌ বা ক্রিয়াপদগুলো কয়েকরকম হয়, যেমনঃ কাল অনুযায়ী অতীত (Past) এবং বর্তমান বা ভবিষ্যৎ (Present and future) কালের ক্রিয়া। অনুজ্ঞাবাচক যেমন আদেশ নিষেধ (Imperative) ।  বাচ্য অনুযায়ী কর্তৃবাচক (Active verb) ও কর্মবাচক ক্রিয়া (Passive verb) ইত্যাদি।

 

ক্রিয়া فِعْلٌ

উদাহরণ

বাংলা নাম

আরবি নাম

رَحِمَ ، نَصَرَ، خَلَقَ، قَتَلَ، قَرَأَ

অতীত কাল

الفِعْلُ الْمَاضِيْ

يَرْحَمُ، يَنْصُرُ، يَخْلُقُ، يَقْتُلُ،

বর্তমান কাল

الفِعْلُ الْمُضَارِعُ

اِرْحَمْ، ، اُنْصُرْ، اُخْلُقْ، اِقْرَأْ،

আদেশ

فِعْلُ الأَمرِ

لَا تَنْصُرْ، لَا تَذْهَبْ، لَا تَقْتُلْ،

নিষেধ

النَّهِي

يُوْلَدُ ، قُتِلَ، نُصِرَ, خُلِقَ

কর্মবাচ্য ক্রিয়া

الفِعْلُ الْمَجْهُولُ

 

جُمْلَةٌ  বা বাক্য

বাক্যকে আরবীতে বলা হয় جُمْلَةٌ  । গঠনানুযায়ী বাক্য দুই প্রকারঃ নামপ্রধান বাক্য (Nominal sentence) ও ক্রিয়াপ্রধান বাক্য (Verbal sentence)। অর্থানুযায়ী বাক্য প্রধানত দুই প্রকারঃ সংবাদমূলক আর রচনামুলক। এদের মধ্যে রয়েছে যেমন, সাধারণ হা বাচক বাক্য (Affirmative sentence), না বাচক বাক্য (Negative sentence), আদেশ সুচক বাক্য (Imperative sentence), প্রশ্নসূচক বাক্য (Interrogative sentence), আশ্চর্যজনক বাক্য (Exclamatory sentence), শর্তসূচক বাক্য (Conditional sentence) , তুলনামূলক বাক্য (Comparative sentience), আলংকারিক বাক্য (Rhetorical sentence) ইত্যাদি।

 

 

বাক্য جُمْلَةٌ

উদাহরণ

বাংলা নাম

আরবি নাম

اللَّهُ أَحَدٌ

নামপ্রধান সরল বাক্য

الجُمْلَة الاسْمِيَّة 

خَلَقَ الْإِنسَانَ

ক্রিয়া প্রধান সরল বাক্য

الجُمْلَةُ الفِعْلِيَّة

اِذْهَبْ إِلَىٰ فِرْعَوْنَ

আদেশ

الأَمْر

لَا تَعْبُدِ الشَّيْطَانَ

নিষেধ

 النَّهِي

مَا الْقَارِعَةُ ؟ 

প্রশ্নসূচক বাক্য

الجُمْلَةُ الإِسْتِفْهَامِيَّةُ

اللهُ أكْبَرُ

তুলনা বাচক বাক্য

جُمْلَةُ التَّفْضِيْلِ

فَسَجَدُوا إِلَّا إِبْلِيسَ

ব্যতীত সূচক বাক্য

الجُمْلَةُ اَلْإِسْتِثْنَائِية

قُتِلَ الْإِنسَانُ مَا أَكْفَرَهُ

আশ্চর্যবাচক বাক্য

جُمْلَةُ التَّعَجُّبِ

إِن تَنصُرُوا اللَّهَ يَنصُرْكُمْ

শর্তসূচক বাক্য

الجُمْلَةُ الشَّرْطِيَّةُ

إِنَّ الْأَمْرَ‌ كُلَّهُ لِلَّـهِ

জোরপ্রদানমূলক বাক্য

الجُمْلَةُ التَّأْكِيْدِيَّةُ

الرَّجُلُ كَأسَدٍ

আলংকারিক বাক্য

الجُمْلَةُ البَلاغِيَّةُ

 

 

 


Merina

ভিডিও unavailable দেখায়

reply