সুরা বাকারাহ (১০-১৬)

তাদের অন্তঃকরণ ব্যধিগ্রস্ত আর আল্লাহ তাদের ব্যধি আরো বাড়িয়ে দিয়েছেন। (২-১০)

فِي قُلُوبِهِم مَّرَضٌ فَزَادَهُمُ اللَّهُ مَرَضًا

রোগ, অসুস্থতা

مَرَضٌ 

যখন আমি রোগাক্রান্ত হই

(২৬:৮০)

وَإِذَا مَرِضْتُ

অসুস্থ হওয়া

مَرِضَ- يَمْرَضُ

সেটা রোগের সুচিকিৎসা এবং মুমিনের জন্য রহমত। (১৭:৮২)

هُوَ شِفَاءٌ وَرَحْمَةٌ لِّلْمُؤْمِنِينَ

আরোগ্য, পথ্য

شِفَاءٌ

আর আমি সুস্থ করে তুলি জন্মান্ধকে এবং শ্বেত কুষ্ঠ রোগীকে। (:৪৯)

وَأُبْرِئُ الْأَكْمَهَ وَالْأَبْرَصَ

সুস্থ করা, নিষ্কলুষ করা

أَبْرَأَ- يُبْرِئُ

তখন তিনিই আমাকে আরোগ্য দান করেন।

(২৬:৮০)

فَهُوَ يَشْفِينِ

সুস্থ করা, নিরাময় করা, আরোগ্য করা,

شَفَى- يَشْفِي

তাদের অন্তঃকরণ ব্যধিগ্রস্ত আর আল্লাহ তাদের ব্যধি আরো বাড়িয়ে দিয়েছেন। (২-১০)

فِي قُلُوبِهِم مَّرَضٌ فَزَادَهُمُ اللَّهُ مَرَضًا

বাড়িয়ে দেয়া, অতিরিক্ত করা

زَادَ- يَزِيدُ

তা হতে অল্প হোক কিংবা বেশী।

(৪:৭)

مِمَّا قَلَّ مِنْهُ أَوْ كَثُرَ

অনেক, বেশি, বহু

كَثَّرَ- يُكَثِّرُ

মানুষ সব বস্তু থেকে অধিক তর্কপ্রিয়। ১৮:৫৪

وَكَانَ الْإِنسَانُ أَكْثَرَ شَيْءٍ جَدَلًا

অধিক, বেশী

أَكْثَرَ- يُكْثِرُ

দান খয়রাতকে বর্ধিত করেন।

:২৭৬

وَيُرْبِي الصَّدَقَاتِ

লাভজনক, বর্ধিত করা

أَرْبَى- يُرْبِي

অতঃপর আল্লাহ তাকে দ্বিগুণ-বহুগুণ বৃদ্ধি করে দিবেন :২৪৫

فَيُضَاعِفَهُ لَهُ أَضْعَافًا كَثِيرَةً

দ্বিগুন দেওয়া

ضَاعَفَ- يُضَاعِفُ

এমনকি তারা অনেক বেড়ে গিয়েছি  (:৯৫)

حَتَّىٰ عَفَوا

ক্ষমা করা, বেড়ে যাওয়া

عَفَا- يَعْفُو

যে ব্যক্তি খুশীর সাথে সৎকর্ম করে

(২:১৮৪)

فَمَن تَطَوَّعَ خَيْرًا

স্বেচ্ছায় দিতে চাত্তয়া

تَطَوَّعَ- يَتَطَوَّعُ

তা আল্লাহর কাছে উত্তম আকারে এবং পুরস্কার হিসেবে বর্ধিতরূপে পাবে। (৭৩-২০)

تَجِدُوهُ عِندَ اللَّهِ هُوَ خَيْرًا وَأَعْظَمَ أَجْرًا

দেওয়া, সর্বাধিক, শ্রেষ্ঠ

أَعْظَمَ- يُعْظِمُ

তোমাদের চোখে অল্প

:৪৪

فِي أَعْيُنِكُمْ قَلِيلًا

কমদেয়া, হ্রাসকরা

قَلَّلَ-يُقَلِّلُ

তখন নামাযে কিছুটা হ্রাস করলে তোমাদের কোন গোনাহ নেই

:১০১

فَلَيْسَ عَلَيْكُمْ جُنَاحٌ أَن تَقْصُرُوا مِنَ الصَّلَاةِ

হ্রাস করা, কমানো,

قَصَرَ- يَقْصُرُ

তাদের আমল বিন্দুমাত্রও হ্রাস করব না। ৫২:২১

وَمَا أَلَتْنَاهُم مِّنْ عَمَلِهِم مِّن شَيْءٍ

কমানো, হ্রাস করা, কম দেয়া

أَلَتَ- يَأْلِتُ

বিন্দুমাত্রও বেশ কম না করে।

:২৮২

وَلَا يَبْخَسْ مِنْهُ شَيْئًا

কমানো, কম দেয়া,

بَخَسَ- يَبْخَسُ

এবং তার বয়স হ্রাস পায় না

৩৫:১১

وَلَا يُنقَصُ مِنْ عُمُرِهِ

নাকচ করা, কমানো, ক্ষতি করা

نَقَصَ- يَنْقُصُ

ওজনে কম দিয়ো না। ৫৫:

وَلَا تُخْسِرُوا الْمِيزَانَ

ক্ষতিগ্রস্থ করা

أَخْسَرَ- يُخْسِرُ

বস্তুতঃ তাদের জন্য নির্ধারিত রয়েছে ভয়াবহ আযাব, তাদের মিথ্যাচারের দরুন (২-১০)

وَلَهُمْ عَذَابٌ أَلِيمٌ بِمَا كَانُوا يَكْذِبُونَ

যন্ত্রণাদায়ক, মর্মান্তিক

أَلِيْمٌ

 

 

মিথ্যাবলা,

كَذَبَ-يَكْذِبُ

হঠাৎ তা তাদের অলীক কীর্তিগুলোকে গ্রাস করতে লাগল। (২৬: ৪৫)

فَإِذَا هِيَ تَلْقَفُ مَا يَأْفِكُونَ

মিথ্যা বলা,

নকলঅলীক

أَفَكَ- يَأْفِكُ (إفْكٌ)

তারা কি বলে? সে তা রচনা করে এনেছেন ১১:৩৫

أَمْ يَقُولُونَ افْتَرَاهُ

মিথ্যা উদ্ভাবন করা

اِفْتَرَى-يَفْتَرِي (افْتِرَاءٌ)

সে যদি আমার নামে কোন কথা রচনা করত, (৬৯:৪৪)

وَلَوْ تَقَوَّلَ عَلَيْنَا بَعْضَ الْأَقَاوِيلِ

মিথ্যা উদ্ভাবন করা, মিথ্যা রচনা করা

تَقَوَّلَ- يَتَقَوَّلُ

বললেন, শীঘ্রই আমি দেখব তুমি কি সত্য বলছ, ২৭:২৭

قَالَ سَنَنظُرُ أَصَدَقْتَ

সত্যবলা

صَدَقَ-يَصْدُقُ

মনে রেখো, তারাই হাঙ্গামা সৃষ্টিকারী, কিন্তু তারা তা উপলব্ধি করে না। (২-১২)

أَلَا إِنَّهُمْ هُمُ الْمُفْسِدُونَ وَلَٰكِن لَّا يَشْعُرُونَ

বিপর্যয়/ফ্যাসাদ সৃষ্টি করা

أَفْسَدَ-يُفْسِدُ

আর দুনিয়ার বুকে দাংগা-হাংগামা করে বেড়িও না। (:৬০)  

 

 

وَلَا تَعْثَوْا فِي الْأَرْضِ مُفْسِدِينَ

অন্যায়, দাংগা-হাংগামা

عَثَا/عَثَى

ইয়াজুজ মাজুজ দেশে অশান্তি সৃষ্টি করেছে। ১৮:৯৪

يَأْجُوجَ وَمَأْجُوجَ مُفْسِدُونَ فِي الْأَرْضِ

বিপর্যয় সৃষ্টিকারী

مُفْسِدٌ ج مُفْسِدُونَ

দেশময় বড়ই অকল্যাণ হবে। :৭৩

فِي الْأَرْضِ وَفَسَادٌ كَبِيرٌ

বিপর্যয়

فَسَادٌ

মানুষের মাঝে মীমাংসা করে দাও

:২২৪

وَتُصْلِحُوا بَيْنَ النَّاسِ

মিটমাটকরা, সংশোধনকরা

أَصْلَحَ - يُصْلِحُ (إصْلَاحٌ)

তারা উভয়ের মীমাংসা চাইলে আল্লাহ উভয়ের মাঝে উপায় করে দিবেন (৪-৩৫)

إِن يُرِيدَا إِصْلَاحًا يُوَفِّقِ اللَّهُ بَيْنَهُمَا

অনুকূল করা, তাউফিক দেওয়া,

وَفَّقَ-يُوَفِّقُ (تَوْفِيقٌ)

বস্তুতঃ অমঙ্গলকামী মঙ্গলকামীদেরকে আল্লাহ জানেন।

:২২০

وَاللَّهُ يَعْلَمُ الْمُفْسِدَ مِنَ الْمُصْلِحِ

সংস্কারক

مُصْلِحٌ ج مُصْلِحُونَ

দুনিয়ার বুকে দাঙ্গা-হাঙ্গামা সৃষ্টি করো না (২-১১)

لَا تُفْسِدُوا فِي الْأَرْضِ

পৃথিবী, ভূপৃষ্ঠ, মাটি, দেশ

أَرْضٌ

আকাশকে ছাদ স্বরূপ (:২২)

وَالسَّمَاءَ بِنَاءً

আকাশ

السَّمَاءُ ج السَّمَاوَتُ

প্রকৃতপক্ষে তারাই বোকা, কিন্তু তারা তা বোঝে না। (২: ১৩)

إِنَّهُمْ هُمُ السُّفَهَاءُ وَلَٰكِن لَّا يَعْلَمُونَ

নির্বোধ, বোকা, মূর্খ, অজ্ঞ

سَفِيهٌ ج سُفَهَاءُ (سَفِهَ-يسْفَهُ)

এবং তাদের সাথে যখন মুর্খরা কথা বলতে থাকে (২৫:৬৩)

وَإِذَا خَاطَبَهُمُ الْجَاهِلُونَ

মূর্খ, নির্বোধ, অজ্ঞ

جَاهِلٌ ج جَاهِلُونَ

নিশ্চয় সে জালেম-অজ্ঞ। (৩৩:৭২)

إِنَّهُ كَانَ ظَلُومًا جَهُولًا

নিরেট মূর্খ, অতিশয় বোকা

جَهُولٌ

যারা ইতর স্থুল-বুদ্ধিসম্পন্ন তারা ব্যতীত (১১:২৭)

إِلَّا الَّذِينَ هُمْ أَرَاذِلُنَا بَادِيَ الرَّأْيِ

অপূর্ণাঙ্গ মতামত,

بَادِئُ الرَأْيِ

আমরাও কি ঈমান আনব বোকাদেরই মত (:৬৬)

قَالُوا أَنُؤْمِنُ كَمَا آمَنَ السُّفَهَاءُ

নির্বুদ্ধিতা, অজ্ঞতা

سَفَهٌ، سَفَاهَةٌ

তোমাদের মধ্যে যে কেউ অজ্ঞতাবশতঃ কোন মন্দ কাজ করে

:৫৪

مَنْ عَمِلَ مِنكُمْ سُوءًا بِجَهَالَةٍ

মূর্খতা, বোকামি, আহাম্মকি, বর্বরতা

جَهَالَةٌ (جَهِلَ-يَجْهَلُ)، جَاهِلِيَّةٌ

আল্লাহর বান্দাদের মধ্যে জ্ঞানীরাই কেবল তাঁকে ভয় করে।

৩৫:২৮

إِنَّمَا يَخْشَى اللَّهَ مِنْ عِبَادِهِ الْعُلَمَاءُ

বিদ্বান

عَالِمٌ ج عُلَمَاءُ (عَلِمَ-يَعْلَمُ)

নিশ্চয় লোকটি বিজ্ঞ-যাদুকর।

:১০৯

إِنَّ هَٰذَا لَسَاحِرٌ عَلِيمٌ

বিজ্ঞ, বুদ্ধিমান

 

علِيمٌ

নিশ্চয় তুমিই প্রকৃত জ্ঞানসম্পন্ন, হেকমতওয়ালা। (:৩২)

إِنَّكَ أَنتَ الْعَلِيمُ الْحَكِيمُ

প্রজ্ঞাময়, বিদ্বান, বিচারক,

حَكِيْمٌ

আল্লাহর আজ্ঞাবহ পয়গম্বর, দরবেশ আলেমরা এর মাধ্যমে ইহুদীদেরকে ফয়সালা দিতেন।

:৪৪

يَحْكُمُ بِهَا النَّبِيُّونَ الَّذِينَ أَسْلَمُوا لِلَّذِينَ هَادُوا وَالرَّبَّانِيُّونَ وَالْأَحْبَارُ

ইহুদী আলেম, পাদ্রী, পণ্ডিত

حِبْرٌ ج أَحْبَارٌ

এর কারণ এই যে, তাদের  মধ্যে আলেম রয়েছে, :৮২

ذَٰلِكَ بِأَنَّ مِنْهُمْ قِسِّيسِينَ

পুরোহিত, ধর্মযাজক

قِسِّيسٌ ج قِسِّيسُّونَ

যে বিষয়ে তোমরা কিছুই জান না, সে বিষয়ে কেন বিবাদ করছ

:৬৬

تُحَاجُّونَ فِيمَا لَيْسَ لَكُم بِهِ عِلْمٌ

জ্ঞান, বিজ্ঞান

عِلْمٌ

তার বৃত্তান্ত আমি সম্যক অবগত আছি। ১৮:৯১

كَذَٰلِكَ وَقَدْ أَحَطْنَا بِمَا لَدَيْهِ خُبْرًا

জ্ঞান, উপলব্ধি, প্রতিভা, অভিজ্ঞতা

خُبْرٌ

অতএব, যে ব্যক্তি তার পালনকর্তার সাক্ষাত কামনা করে, সে যেন, সৎকর্ম সম্পাদন করে (১৮-১১০)

فَمَن كَانَ يَرْجُو لِقَاءَ رَبِّهِ فَلْيَعْمَلْ عَمَلًا صَالِحًا

সাক্ষাৎকরা, মিলিতহওয়া

لَقِيَ- يَلْقَى

আবার যখন তাদের শয়তানদের সাথে একান্তে সাক্ষাৎ করে, তখন বলে, আমরা তোমাদের সাথে রয়েছি (২-১৪)

وَإِذَا خَلَوْا إِلَىٰ شَيَاطِينِهِمْ قَالُوا إِنَّا مَعَكُمْ

একান্তে বসা, খালি হওয়া, অতিবাহিত হওয়া,

خَلاَ- يَخْلُو

অতঃপর যখন তারা তাঁর কাছ থেকে নিরাশ হয়ে গেল, তখন পরামর্শের জন্যে এখানে বসল।

১২:৮০

فَلَمَّا اسْتَيْأَسُوا مِنْهُ خَلَصُوا نَجِيًّا

নির্জনে বসা, একাগ্রতা অবলম্বন করা

خَلَصَ- يَخْلُصُ

আবার যখন তাদের শয়তানদের সাথে একান্তে সাক্ষাৎ করে, তখন বলে, আমরা তোমাদের সাথে রয়েছি (২-১৪)

وَإِذَا خَلَوْا إِلَىٰ شَيَاطِينِهِمْ قَالُوا إِنَّا مَعَكُمْ

মন্দ, খারাপ, অসৎব্যক্তি/সঙ্গ/শক্তি

شَيْطَانٌ ج شَيَاطِينُ

বরং আল্লাহই তাদের সাথে উপহাস করেন।

اللَّهُ يَسْتَهْزِئُ بِهِمْ

উপহাসকারী, বিদ্রুপকারী (উপহাসকরা)

مُسْتَهْزِئٌ ج مُسْتَهْزِئُونَ (اِسْتَهْزَأَ-يَسْتَهْزِئُ)

কেউ যেন কাউকে উপহাস না করে

لَا يَسْخَرْ قَوْمٌ مِّن قَوْمٍ

ঠাট্টা করা, উপহাস করা,

سَخِرَ-يَسْخَرُ

তারা যখন কোন নিদর্শন দেখে তখন বিদ্রূপ করে। (৩৭:১৪)

وَإِذَا رَأَوْا آيَةً يَسْتَسْخِرُونَ

ঠাট্টা করতে চাওয়া, উপহাস করা,

اِسْتَسْخَرَ-يَسْتَسْخِرُ

এটা এজন্যে যে, তোমরা আল্লাহর আয়াতসমূহকে ঠাট্টারূপে গ্রহণ করেছিলে (৪৫:৩৫)

ذَٰلِكُم بِأَنَّكُمُ اتَّخَذْتُمْ آيَاتِ اللَّهِ هُزُوًا

উপহাস, বিদ্রুপ

هُزُوٌ

আমরা কি অহেতুক তাদেরকে ঠাট্টার পাত্র করে নিয়েছিলাম

(৩৮:৬৩)

أَتَّخَذْنَاهُمْ سِخْرِيًّا

উপহাসের বস্তু

سِخْرِيٌّ

আর তাদেরকে তিনি ছেড়ে দিয়েছেন যেন তারা নিজেদের অহংকার কুমতলবে হয়রান পেরেশান থাকে (২-১৫)

وَيَمُدُّهُمْ فِي طُغْيَانِهِمْ يَعْمَهُونَ

অবকাশ দেয়া

مَدَّ-يَمُدُّ

আপনি আমাকে পুনরুত্থান দিবস পর্যন্ত অবকাশ দিন। (৩৮:৭৯)

فَأَنظِرْنِي إِلَىٰ يَوْمِ يُبْعَثُونَ

অবকাশ দেওয়া, ছাড় দেওয়া, দেখানো,

أَنْظَرَ-يُنْظِرُ

কাফেররা যেন মনে না করে যে আমি যে, অবকাশ দান করি (:১৭৮)

وَلَا يَحْسَبَنَّ الَّذِينَ كَفَرُوا أَنَّمَا نُمْلِي

সুযোগ দেওয়া, অবকাশ দান

أَمْلَى-يُمْلِي

বিত্ত-বৈভবের অধিকারী মিথ্যারোপকারীদেরকে আমার হাতে ছেড়ে দিন (৭৩:১১)

وَذَرْنِي وَالْمُكَذِّبِينَ أُولِي النَّعْمَةِ

সুযোগ দেওয়া, অবকাশ দান

مَهَّلَ-يُمَهِّلُ

অতএব, কাফেরদেরকে অবকাশ দিন, তাদেরকে অবকাশ দিন, কিছু দিনের জন্যে।  (৮৬:১৭)

فَمَهِّلِ الْكَافِرِينَ أَمْهِلْهُمْ رُوَيْدًا

সুযোগ দেওয়া, প্রশ্রয় দেত্তয়া, অনুগ্রহ করা

أَمْهَلَ-يُمْهِلُ

তারা বলল, আপনি তাকে তার ভাইকে অবকাশ দান করুন (:১১১)

قَالُوا أَرْجِهْ وَأَخَاهُ

মুলতবি রাখা, বিলম্ব করা,

أَرْجَهَ-يُرْجِهُ

আর তাদেরকে তিনি ছেড়ে দিয়েছেন যেন তারা নিজেদের অহংকার কুমতলবে হয়রান পেরেশান থাকে (২-১৫)

وَيَمُدُّهُمْ فِي طُغْيَانِهِمْ يَعْمَهُونَ

সীমালঙ্ঘন, অবাধ্যতা

طُغْيَانٌ (طَغَى-يَطْغَى)

সামুদ সম্প্রদায় অবাধ্যতা বশতঃ মিথ্যারোপ করেছিল। (৯১:১১)

كَذَّبَتْ ثَمُودُ بِطَغْوَاهَا

অবাধ্যতা, পাপ, লঙ্ঘন, অপরাধ,

طَغْوَى

পাপ সীমালঙ্ঘনের ব্যাপারে একে অন্যের সহায়তা করো না :

 

وَلَا تَعَاوَنُوا عَلَى الْإِثْمِ وَالْعُدْوَانِ

সীমালঙ্ঘন করা, বাড়াবাড়ি করা,

عُدْوَانٌ، عَدْوٌ (عَدَا- يَعْدُو)

তবে তা অত্যন্ত গর্হিত কাজ হবে।

১৮:১৪

لَّقَدْ قُلْنَا إِذًا شَطَطًا

অত্যন্ত গর্হিত

شَطَطٌ

যার কার্য কলাপ হচ্ছে সীমা অতিক্রম করা ১৮:২৮

وَكَانَ أَمْرُهُ فُرُطًا

মাত্রাধিক্য, আধিক্য,

فُرُطٌ

এবং তার সীমা অতিক্রম করে

:১৪

وَيَتَعَدَّ حُدُودَهُ

সীমালঙ্ঘন করা

تَعَدَّى-يَتَعَدَّى

এবং গুরুতর অবাধ্যতায় মেতে উঠেছে। ২৫:২১

وَعَتَوْا عُتُوًّا كَبِيرًا

ধৃষ্টতা প্রদর্শন করা, বিদ্রোহ করা,

عُتُوٌ (عَتَا-يَعْتُو)

 

 

বিভ্রান্তের মত ঘুরে বেড়ানো

عَمِهَ - يَعْمَهُ

তারা ভুপৃষ্ঠে উদভ্রান্ত হয়ে ফিরবে।

:২৬

يَتِيهُونَ فِي الْأَرْضِ

উদ্ভ্রান্ত হয়ে ঘোরাফেরা

تَاهَ-يَتِيهُ

 

 

ক্রয়করা, বিনিময়করা

اِشْتَرَى- يَشْتَرِي

যারা পার্থিব জীবনকে আখেরাতের পরিবর্তে বিক্রি করে দেয় :৭৪

الَّذِينَ يَشْرُونَ الْحَيَاةَ الدُّنْيَا بِالْآخِرَةِ

কেনা, কেনাবেচা করা,

شَرَى- يَشْرِي

তোমরা ক্রয়-বিক্রয়ের সময় সাক্ষী রাখ। :২৮২

وَأَشْهِدُوا إِذَا تَبَايَعْتُمْ

কেনাবেচা করা

تَبَايَعَ - يَتَبَايَعُ

সুতরাং তোমরা আনন্দিত হও সে লেন-দেনের উপর, যা তোমরা করছ তাঁর সাথে। :১১১

فَاسْتَبْشِرُوا بِبَيْعِكُمُ الَّذِي بَايَعْتُم بِهِ

লেনদেন করা, আনুগত্যের শপথ করা

بَايَعَ - يُبَايِعُ

বস্তুতঃ তারা তাদের ব্যবসায় লাভবান হতে পারেনি (২-১৬)

فَمَا رَبِحَت تِّجَارَتُهُمْ

লাভজনক হওয়া

رَبِحَ - يَرْبَحُ

নিঃসন্দেহে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে যারা মিথ্যা প্রতিপন্ন করেছে আল্লাহর সাথে সাক্ষাতকে ১০:৪৫

قَدْ خَسِرَ الَّذِينَ كَذَّبُوا بِلِقَاءِ اللَّهِ

ক্ষতিগ্রস্থ  হওয়া,

خَسِرَ- يَخْسَرُ

তারা যখন কোন ব্যবসায়ের সুযোগ অথবা ক্রীড়াকৌতুক দেখে

وَإِذَا رَأَوْا تِجَارَةً أَوْ لَهْوًا

ব্যবসা

تِجَارَةٌ

বেচাকেনা বন্ধ কর।

৬২:

وَذَرُوا الْبَيْعَ

বেচাকেনা

بَيْعٌ

তাদের উদাহরণ সে ব্যক্তির মত, যে লোক কোথাও আগুন জ্বালালো (২-১৭)

مَثَلُهُمْ كَمَثَلِ الَّذِي اسْتَوْقَدَ نَارًا

সাদৃশ্য, উদাহরণ

مَثَلٌ

যাদের সমান শক্তি ও বলবীর্যে সারা বিশ্বের শহরসমূহে কোন লোক সৃজিত হয়নি (৮৯: ৮)

الَّتِي لَمْ يُخْلَقْ مِثْلُهَا فِي الْبِلَادِ

সাদৃশ্যপূর্ণ, একই, মত

مِثْلٌ ج أَمْثَالٌ

এবং আঙ্গুরের বাগান, যয়তুন, আনার পরস্পর সাদৃশ্যযুক্ত এবং সাদৃশ্যহীন। :৯৯

وَجَنَّاتٍ مِّنْ أَعْنَابٍ وَالزَّيْتُونَ وَالرُّمَّانَ مُشْتَبِهًا وَغَيْرَ مُتَشَابِهٍ

প্রতিম, অনুরূপ, সাদৃশ্যযুক্ত

مُتَشَابهٌ

এবং আঙ্গুরের বাগান, যয়তুন, আনার পরস্পর সাদৃশ্যযুক্ত এবং সাদৃশ্যহীন। :৯৯

وَجَنَّاتٍ مِّنْ أَعْنَابٍ وَالزَّيْتُونَ وَالرُّمَّانَ مُشْتَبِهًا وَغَيْرَ مُتَشَابِهٍ

সাদৃশ্যযুক্ত

مُشْتَبِهٌ

ধরনের আরও কিছু শাস্তি আছে।

৩৮:৫৮

وَآخَرُ مِن شَكْلِهِ أَزْوَاجٌ

অনুরূপ, সমরূপ

شَكْلٌ

এবং তা দ্বারা আমি বিভিন্ন প্রকার উদ্ভিদ উৎপন্ন করেছি। ২০:৫৩

فَأَخْرَجْنَا بِهِ أَزْوَاجًا مِّن نَّبَاتٍ شَتَّىٰ

ভিন্ন, বৈসাদৃশ্যপূর্ণ

شَتَّى

সেদিন মানুষ বিভিন্ন দলে প্রকাশ পাবে ৯৯:

يَوْمَئِذٍ يَصْدُرُ النَّاسُ أَشْتَاتًا

বিচ্ছিন্নভাবে, পৃথক পৃথক, আলাদা

أَشْتَاتٌ

তার পেট থেকে বিভিন্ন রঙে পানীয় নির্গত হয়। ১৬:৬৯

يَخْرُجُ مِن بُطُونِهَا شَرَابٌ مُّخْتَلِفٌ

বিভিন্ন, নানারকম,

مُخْتَلِفٌ ج  مُخْتَلِفُونَ

বরং পৃথক পৃথক দরজা দিয়ে প্রবেশ করো। ১২:৬৭

وَادْخُلُوا مِنْ أَبْوَابٍ مُّتَفَرِّقَةٍ

বিক্ষিপ্ত, পৃথক্

مُتَفَرِّقٌ (مُتَفَرِّقَةٌ) ج مُتَفَرِّقُونَ